নিউজ ডেস্ক : পাঞ্জাব কংগ্রেসের মন্ত্রী ও প্রাক্তন ক্রিকেটার নভজিৎ সিং সিদ্ধুর পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগদান করা নিয়ে উত্তাল সারাদেশ ।


ভারতবর্ষ যখন তাদের প্রিয় নেতা তথা ভারতরত্ন অটল বিহারী বাজপাই প্রয়াণে শোকোস্তব্ধ সেই মুহূর্তে পাকিস্তানের নবনির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে পাঞ্জাব প্রদেশের কংগ্রেস মন্ত্রী তথা প্রাক্তন ভারতীয় খেলোয়াড় নভজিৎ সিং সিদ্ধুর যোগদান করাকে কেন্দ্র করে উত্তাল সারাদেশ । শুধু তাই নয় বিতর্ক শুরু হয়েছে পাক অধিকৃত কাশ্মীরের রাষ্ট্রপতি মাসুদ খানের পার্শ্ববর্তী আসনে বসা এবং পাকিস্তানের সেনাবাহিনী প্রধান  জাভেদ বাজওআর সাথে আলিঙ্গন করাকে কেন্দ্র করে ।

আর এই ঘটনার চিত্র ভারতবাসীর সামনে আসতেই ক্ষোভে ফেটে পড়ে গোটা ভারতবর্ষ ।  যেই পাকিস্তান সারা জীবন ভারতের সাথে শত্রুতা করে গেল , যেই পাকিস্তানের সেনাবাহিনী ও পাকিস্তান সরকার জঙ্গিদের মদত দিয়ে ভারতের ওপর আক্রমণের সর্বদা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে,  যেই পাকিস্তান ভারত থেকে ভারতের কাশ্মীর কে ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছে সেই পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগদান করে সেনাপ্রধানকে আলিঙ্গন করা এবং পাক অধিকৃত কাশ্মীরের রাষ্ট্রপতির পাশে বসে সম্পূর্ণ অনুষ্ঠান উপভোগ করায় সিদ্ধুর বিরুদ্ধে  ফুঁসছে সারাদেশ ।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর দল তেহরিক-ই-ইনসাফ ক্ষমতায় আসার পর থেকেই ভারতের সাথে পাকিস্তানের সম্পর্ক আরো তলানীতে যাওয়ার আশঙ্কা করছেন ভারতীয় বিশেষজ্ঞ থেকে শুরু করে রাজনীতিবিদরা, ঠিক সেই মুহূর্তে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগদান করে ও পাকিস্তানি সেনাপ্রধান এবং পাক অধিকৃত কাশ্মীর রাষ্ট্রপতির সাথে এক সারিতে বসে বন্ধুপ্রীতি, নাকি দেশের অপমান কোনটা করলেন সিদ্ধু সেই নিয়ে প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছে সারাদেশ ।

যদিও এ ঘটনাকে গুরুত্ব দিতে নারাজ কংগ্রেস দল তবুও এটা যে দেশের পক্ষে কতটা ক্ষতি করবে এবং দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষার ক্ষেত্রে কতটা হানিকারক হবে তা ইতিমধ্যেই জনসমক্ষে প্রকাশ করেছে বিজেপি । শুধু বিজেপি নয় সিদ্ধুর এহেন পদক্ষেপের পর ক্ষোভের আগুনে জ্বলছে গোটা দেশ ও দেশে থেকে দেশদ্রোহিতা করার অভিযোগও ওঠে বিভিন্ন প্রান্ত থেকে । ভারতবর্ষের বিভিন্ন প্রান্তে সিদ্ধুর ছবি ও প্রতিকৃতিতে কালি মাখানো, জুতার মালা পরানো এবং কুশপুতুলে অগ্নিসংযোগ করা হয় । সেই সাথে দাবি ওঠে অবিলম্বে পাকিস্থানে যাওয়ার প্রকৃত কারণ ব্যাখ্যাসহ নিঃশর্তভাবে ক্ষমা চাইতে হবে সিদ্ধুকে, নাহলে দেশ কোনদিনও ক্ষমা করবে না তাকে ।  

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]