একদিকে রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা গরীবের রাজা মানিক বাবু যেখানে নিজের জন্য রাজকীয় বাসস্থান ও গাড়ির দাবি জানিয়েছেন রাজ্য সরকারকে , অপরদিকে বর্তমান  মুখ্যমন্ত্রী সমস্ত রাজকীয়তা কে পেছনে ফেলে ছুটে বেড়াচ্ছেন রাজ্যের প্রত্তর প্রান্তগুলিতে এতবছর ধরে বঞ্চনার শিকার ভূমিপুত্রদের খবর নিতে । 

আজন্ম কালে কোন মন্ত্রী তো দুরের কথা , কোন রাজনৈতিক নেতা না দেখা ভূমিপুত্ররা  মুখ্যমন্ত্রীকে কাছে পেয়ে আবেগে আপ্লুত হয়ে পরে । তারা যেন নিজের চোখকেই বিশ্বাস করতে পারছিল না , তারা যেন হাতের সামনে ঈশ্বর পেল ।   এত বছর ধরে প্রাক্তন শাসকদল কিভাবে তাদের প্রয়োজনে ব্যাবহার করে সুধু বঞ্চনা ছাড়া আর কিছুই দেয় নি সেই চিত্র তারা মুখ্যমন্ত্রীকে কাছে পেয়ে  তুলে ধরে ।
গতকাল উত্তরজেলার যুবরাজনগর বিধানসভার বৈরাগীবাড়ি, পশ্চিম তিলথই গ্রাম পরিদর্শনে গিয়ে গ্রামের এই বেহাল অবস্থা দেখে  ও গ্রামবাসীদের সব অভিযোগ শুনে একহাত নেন বি ডি ও থেকে শুরু করে ওই ব্লকের ভারপ্রাপ্ত আধিকারিকদের । মুখ্যমন্ত্রীর ভৎসনার মুখে পরে কিংকর্তব্যবিমুর হয়ে পরে আধিকারিকরা সেই সাথে মুখ্যমন্ত্রী দ্রুত হাতে নেওয়া প্রকল্পগুলি শেষ করার নির্দেশ দেন ।

এরপর তিনি হালামবস্তি ও মধুবনেও পরিদর্শনে যান ,  সেখানে মুখ্যমন্ত্রীকে কাছে পেয়ে আপ্যায়নের কোন খামতি রাখেনি গ্রামবাসীরা । সেখানে তিনি সরকারি প্রটোকল ভেঙ্গে গোলাপ ত্রিপুরা নামক জনৈক গ্রামবাসীর বাড়ীতে  দুপুরে খাওয়া দাওয়া সারেন সেই সাথে যে কোন অবস্থায় সবার পাশে থাকার কথা দেন । এরপর তিনি ধর্মনগর বইমেলা উদ্বোধনের উদ্দেশ্যে রওনা দেন ।  

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]