নিউজ ডেস্ক কলকাতা ঃ-

পরিকল্পিত ভাবে সনাতন হিন্দু সংস্কৃতির উপর আক্রমণ হচ্ছে। দেশের মূলে চলছে আঘাত । ক্রমশ অসহ্য হয়ে উঠছে এসব। এবার সময় এল হাতে কলমে কিছু করে দেখানোর। অবশ্য তাঁর প্রস্তুতি শুরু হয়েগেছে। 
কথায় আছে যারা বিজ্ঞান জানে তারা ভগবান কে মানে । আর নাস্তিকরা বিজ্ঞানের নামে কুসংস্কার প্রচার করে। “সরস্বতীপূজা হল কুসংস্কার এমনটাই দাবি তাঁর জন্যই পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত বিদ্যালয় গুলোতে সরস্বতী পূজা বন্ধ করা হল । প্রাচীন কাল থেকেই সরস্বতী পূজা হয়ে আসছে। সরস্বতী পূজা হচ্ছে ভারতের সনাতন সংস্কৃতি। মা সরস্বতী কে বলা হয় বিদ্যা ও সংগীতের দেবী। শুধুমাত্র হিন্দুরাই নয়, অন্ন ধর্মাবলম্বীদের মধ্যে অনেকেই সরস্বতী দেবীর উপাসনা করে সংগীত ক্ষেত্রে সাফল্ল্য অর্জন করার জন্য। উদাহারন সরুপ বলা যায় পাকিস্তানের নুসরাত ফাতে আলী খানও মা সরস্বতীর উপাসনা করতো। এরকম আরো অনেকে আছে।
যেখানে পুরো বিশ্ব সনাতন হিন্দু সংস্কৃতিকে গ্রহণ করছে এবং সনাতন হিন্দু সংস্কৃতির দ্বারা উপকৃত হচ্ছে, সেখানে ভারতের মধ্যেই কিছু গাদ্দার আছে যারা সবসময় নিজেদের সংস্কৃতি ধংস করার জন্য উঠে পরে লেগেছে। এই সব সংস্কৃতি বিরোধী নোংরা গুলোকে সমাজ থেকে পরিষ্কার করে ফেলা প্রয়োজন। তাহলেই আমাদের নিজেদের সংস্কৃতি বজায় থাকবে এবং ভারত অখণ্ড থাকবে। তবুও প্রতিবাদ না হলে হয়তো ওদের আস্কারা আরো বাড়বে।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]