নিউজ ডেস্ক,শ্রীনগরঃ-
ভয়ঙ্কর জঙ্গি হামলার পর গোটা কাশ্মীরকে মুড়ে ফেলা হয়েছে কড়া নিরাপত্তার চাদরে।বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ইন্টারনেট পরিসেবা।ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে জারি করা হয়েছে রেড অ্যালার্ট।এদিকে ক্রমশই বাড়ছে শহিদের সংখ্যা।এখন পর্যন্ত ৪২ জন জওয়ানের শহিদ হওয়ার খবর পওয়া গিয়েছে।তবে সংখ্যাটা বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।জরুরি বৈঠক ডাকলেন ন্যাশনাল সিকিউরিটি এডভাইজার অজিত দোভাল। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে বৈঠকে রয়েছেন উচ্চ পদস্থ আধিকারিকরাও।অনুমান করা হচ্ছে জঙ্গিরা একশ কেজি বিস্ফোরক ব্যবহার করা হয়েছে।ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের তদন্তকারী দল।তদন্ত করে দেখা হচ্ছে কীভাবে এই ঘটনা ঘটল।জম্মু-কাশ্মীরের রাজ্যপালের সঙ্গে কথা বলেন রাজনাথ সিং।তাঁর কাছ থেকে ঘটনার পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট চেয়েছেন গৃহমন্ত্রী।কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কাশ্মীর যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।সিআরপিএফের ডিজি সহ গৃহমন্ত্রীর নেতৃত্বে একটি টীম কাশ্মীরে যেতে পারে বোলে খবর।আগামীকাল ঘটনাস্থলে পৌঁছুতে পারেন রাজনাথ সিং।কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে সিআরপিএফের ডিজির টেলিফোনিক কথা হয়েছে।কেবল সিআরপিএফই নয় সমস্ত সূত্র থেকে দ্রুত রিপোর্ট চাইল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক।পাকস্থানী জঙ্গি সংগঠন জয়েশ-ই-মহম্মদ এই হামলার দায় স্বীকার করেছে।এযাবৎ কালের মধ্যে ভয়াবহ জঙ্গি হামলা শিকার কাশ্মীর।আশঙ্কা করা হচ্ছে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে শহিদের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।সাম্প্রতিক সময়ের মধ্যে ভারতে এটাই অন্যতম বড় জঙ্গি হামলা। 

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]