নিউজ ডেস্ক, তুষার বিশ্বাস, ইসলামপুরঃ- সঠিক তদন্তের দাবীতে অনির্দিষ্ট কালের জন্য বন্ধ দাড়িভিট বিদ্যালয়   

বিদ্যালয়ের গেটে গ্রামের মহিলাদের ধর্না অবস্থান আন্দোলনের জেরে বিদ্যালয়ে প্রবেশ করতে না পেরে মাঠেই বসে অভিভাবকদের নিয়ে সভা করার চেষ্টা দাড়িভিট বিদ্যালয়ের পরিচালন সমিতির। কিন্তু জেলা বিদ্যালয় পরিদর্শক এই সভায় না আসায় সভা বানচাল করলেন ইসলামপুরের দাড়িভিট উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র ছাত্রীদের অভিভাবকেরা। ফলে ১১ দিন ধরে বন্ধ হয়ে পরে থাকা দাড়িভিট বিদ্যালয় খোলার বিষয়ে কোনও উদ্যোগই দেখা গেলনা জেলা প্রশাসনের। 

বন্ধ হয়ে থাকা দাড়িভিট উচ্চ বিদ্যালয়ের পঠন পাঠন চালু করার বিষয় নিয়ে জেলা বিদ্যালয় পরিদর্শক বিদ্যালয় পরিচালন সমিতি ও অভিভাবকদের নিয়ে আজ বৈঠক করার কথা ছিল। বিদ্যালয় গেটে ধর্না অবস্থান করছেন গ্রামের মহিলারা। ফলে বিদ্যালয়ে প্রবেশ করতে পারেনি অভিভাবক, বিদ্যালয় পরিচালন সমিতির সদস্যরা। বিদ্যালয়ের পাশে একটি মাঠে বসে সভা করার সিদ্ধান্ত নিলেও সভার আহ্বায়ক জেলা বিদ্যালয় পরিদর্শক দাড়িভিটে হাজির না থাকায় সভা বাতিল করে দিলেন দাড়িভিট উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র ছাত্রীদের অভিভাবকেরা। আর এক মাস বাদেই স্কুলের বার্ষিক পরীক্ষা। ফলে স্কুল খোলার বিষয়ে প্রশাসন উদ্যোগী না হওয়ায় সমস্যায় বিদ্যালয়ের হাজার দুয়েক ছাত্র ছাত্রী।

ছাত্র মৃত্যুর ঘটনায় সিবিআই তদন্তের আদেশ না দেওয়া পর্যন্ত খুলতে দেওয়া হবে না দাড়িভিট বিদ্যালয়। বিদ্যালয়ের গেটে পথ আটকে গ্রামের মহিলাদের নিয়ে বিক্ষোভ অবরোধ নিহত দুই ছাত্র তাপস ও রাজেশের মায়েরা। বিক্ষোভ অবস্থান কর্মসূচীতে আন্দোলনরত মহিলাদের দাবি যতদিন না ছাত্র মৃত্যুর ঘটনায় সিবিআই তদন্ত শুরু ততদিন দাড়িভিট বিদ্যালয় চালু করতে দেওয়া হবেনা। পুলিশের গুলিতে মৃত বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ছাত্র তাপস বর্মনের মা মঞ্জু বর্মন জানিয়েছেন, এই গ্রামের হাজার হাজার তাপসের মা এই আন্দোলনে শামিল হবেন। প্রশাসন যদি জোর জবরদস্তি করে তাহলে তাদের মৃতদেহের উপর দিয়ে বিদ্যালয়ে প্রবেশ করতে হবে।  রাজেশের মা ঝর্না সরকার জানিয়েছেন, সিবিআই তদন্ত না দেওয়া পর্যন্ত তারা দাড়িভিট বিদ্যালয় খুলতে  দেবেননা তারা।
 

উল্লেখ্য, গত ২০ সেপ্টেম্বর ছাত্র পুলিশ সংঘর্ষে পুলিশের গুলিতে মৃত্যু হয়েছিল বিদ্যালয়ের প্রাক্তন দুই ছাত্র তাপস বর্মন ও রাজেশ সরকারের। এই ঘটনার তদন্তের ভার দেওয়া হয় সিআইডির হাতে। কিন্তু মৃত ছাত্রদের পরিবার ও গ্রামের মানুষের মানুষ দাবি তুলেছেন ঘটনার সিবিআই তদন্তের। গতকাল বিদ্যালয় চালু করার বিষয় নিয়ে অভিভাবকদের নিয়ে মিটিং করার জন্য দাড়িভিট গ্রামে মাইকিং করা হয়। সেই মাইকিং শুনেই আজ সকাল থেকে গ্রামের মহিলাদের নিয়ে নিহত ছাত্র তাপস বর্মনের মা গ্রামের মহিলাদের নিয়ে স্কুলের গেটে অবরোধ বিক্ষোভ শুরু করে।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]