নিউজ ডেস্ক, শিলচর –  শিলচরে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর পাঠানো ৮ প্রতিনিধিদের ঢুকতে বাধা দেন কাছাড় পুলিশ প্রশাসন ৷এয়ারপোর্টেই তৃণমূল কংগ্রেস প্রতিনিধি ও পুলিশের মধ্যে ধস্তাধস্তির বেঁধে যায়৷ 
এয়ারপোর্টে তৃণমূল কংগ্রেস প্রতিনিধি ও পুলিশের মধ্যে ধস্তাধস্তির ছবি ছড়িয়েছে সোশ্যাল সাইটে৷ তাতেই শোরগোল দেশজুড়ে । কিন্তু এসবের মধ্যেও উঠে আসছে অন্য একটি ছবি৷ যেখানে দেখা যাচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেস প্রতিনিধিদের সাথে ধস্তাধস্তির ফলে জখম এক মহিলা পুলিশকর্মীকে৷
জানাযায় তৃণমূল প্রতিনিধিদের সঙ্গে মহিলারা আছেন এমন খবর পেয়ে আগেভাগেই বিমানবন্দরে মহিলা পুলিশকর্মী মোতায়েন করে কাছাড় প্রশাসন ৷ এন.আর.সি ইস্যুতে শিলচরের বাঙালিদের পরিস্থিতি জানতে তৃণমূল প্রতিনিধিরা শিলচরে পৌঁছতেই তাঁদের এয়ারপোর্ট লাউঞ্চে আটকে দেওয়া হয়, কারন আসাম প্রশাসনের পক্ষ থেকে আগেই তৃণমূলের প্রতিনিধি দলকে আসামে প্রবেশের ওপর নিষেধাঞ্জা জারি করা হয়েছিল তাই তৃণমূল সাংসদরা বিমানবন্দরে আশার সাথে সাথে তাদের ধুক্তে বাঁধা দেওয়া হয় এরপরেই শুরু হয় সাংসদ-বিধায়ক বনাম পুলিশের ধস্তাধস্তি৷
আর সেই ধস্তাধস্তিতেই তৃণমূলীদের আঘাত পান অসম পুলিশের এই মহিলা কর্মী । আঘাত পাওয়ার পর তাকে তড়িঘড়ি প্রাথমিক চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হলে জানা যায় বুকে  ও হাতে গুরুতর চোট লেগেছে । সেই সাথে আরও একজন পুলিশ কর্মীর জখম হওয়ার খবরও পাওয়া যায় যদিও তার চোট অতটা গুরুতর নয় বলে জানা যায় । 
যখন সারাদেশ তৃণমূল কংগ্রেস প্রতিনিধি ও পুলিশের মধ্যে ধস্তাধস্তি নিয়ে চর্চায় মগ্ন ঠিক তখনি নিজের ডিউটি পালন করতে গিয়ে তৃণমূলীদের হাতে জখম পুলিশ কর্মীর খোঁজ পশ্চিমবঙ্গ তথা ভারতের কতজন রাজনৈতিক নেতা নেত্রীরা নিয়েছেন সেটাই এখন প্রশ্ন করছে আসামের আপামর জনগণ ।  

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]