নিউজ ডেস্ক নয়াদিল্লি ঃ-

ইমরান খান বেশ কয়েকজন বিদেশি সাংবাদিকের সঙ্গে ভারত-পাক সম্পর্ক নিয়ে কথা বলছিলেন। পাক প্রধানমন্ত্রী তখনই বলে ফেলেন, ২ দেশের শান্তির পথ খুলবে যদি নরেন্দ্র মোদীর সরকার ফের ক্ষমতায় আসে। পাক প্রধানমন্ত্রী আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি সরকারের জয় কামনা করছেন। বিজেপি সরকারের ফের ক্ষমতায় আসা প্রয়োজন কাশ্মীর সমস্যার সমধানে তাঁর দাবি। কাশ্মীর ইস্যু আরও স্পর্শকাতর হয়ে যেতে পারে বলে তিনি দাবি করেন, যদি কংগ্রেস সরকার ফিরে। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান এক সাংবাদিক বৈঠকে বলেন, ”শান্তির পথ খুলতে পারে যদি বিজেপি সরকার ফের ক্ষমতায় আসে। আমরা ভারতের সঙ্গে আলোচনায় বসতে পারব কাশ্মীরের দীর্ঘদিনের সমস্যার সমাধানে। ভারত-পাক আলোচনার পথ খুলবে।” একইসঙ্গে ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানইয়াহুর সঙ্গে মোদীকে তুলনা করে বলেন তিনি, ”এই মুহূর্তে ভারতে যেটা চলছে তা মেনে নেওয়া যায় না। ভারতে বসবাসকারী মুসলিমরা এতদিন পর্যন্ত সেখানে শান্তিতে বসবাস করত। কিন্তু পরিস্থিতি এখন পুরো আলাদা। মুসলিম বিরোধী হাওয়া চলছে ভারতে। উগ্র হিন্দুত্ববাদ সমস্যা বিগড়ে দিচ্ছে। ভারতে বসবাসকারী মুসলিমরা এখন নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। ইজরায়েলে একইরকম বিদ্বেষমূলক আবহাওয়া রয়েছে। এটা কিন্তু খুব খারাপ বিজ্ঞাপন মনুষ্যত্বের জন্য।” পাক প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, জঙ্গি-দমনের প্রক্রিয়া তাঁর সরকার অব্যহত রাখবে দেশের অভ্যন্তরে। এক্ষেত্রে পাক সেনার সঙ্গে পূর্ণ সহযোগিতা করবে তাঁর সরকার। ইমরান এও বলেন, কাশ্মীর সমস্যা সমাধানে আলোচনাই একমাত্র পথ।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]