নিউজ ডেস্ক, নিউ দিল্লীঃ- স্বস্তি পেল মোদী সরকার, রাফাল চুক্তিতে গলদ নেই, কোনও তদন্ত নয়, জানাল সুপ্রিম কোর্ট ।


রাফায়েল মামলায় সুপ্রিম কোর্টে স্বস্তি কেন্দ্রের৷ রাফাল মামলা খারিজ করে প্রধান বিচারপতির বেঞ্চের মন্তব্য, যুদ্ধ বিমানের ক্ষমতা নিয়ে প্রশ্ন তোলাও ঠিক নয় ।  চুক্তিতে এমন কোনও তথ্যগত প্রমাণ খুঁজে পাওয়া যায়নি, যাতে মনে হয় যে কাউকে বেআইনি ভাবে সুবিধা দেওয়া হয়েছে । তাই এটা স্পষ্ট যে বিমান নিয়ে কোন দুর্নীতি হয়নি, যুদ্ধবিমান কেনার প্রযুক্তিগত এবং পদ্ধতিগত বিষয় নিয়ে আমরা সিদ্ধান্ত নিতে পারি না, তাই এবিষয়ে কোন হস্তক্ষেপ করবে না আদালত  ।  ১২৬টির বদলে ৩৬টি রাফায়েল যুদ্ধ বিমান কেনার সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রশ্ন অনুচিত৷ 


প্রসঙ্গত, ফ্রান্সের কাছ থেকে রাফাল যুদ্ধবিমান কেনায় দুর্নীতির অভিযোগ তুলে এবং বরাত পাওয়া সংস্থা হিসাবে অনিল অম্বানীর সংস্থা রিলায়েন্সকে সুবিধা করে দেওয়ার অভিযোগ তুলে শীর্ষ আদালতে একাধিক মামলা দায়ের হয়। দাবি উঠেছিল, আদালতের তত্ত্বাবধানে সিবিআই তদন্তের। গত ৩১ অক্টোবর কেন্দ্রের কাছে রাফালের দাম সংক্রান্ত তথ্য জানতে চায় সুপ্রিম কোর্ট। কেন্দ্রের দেওয়া সমস্ত তথ্য পর্যবেক্ষণ করে শুক্রবার চূড়ান্ত রায়ে শীর্ষ সাফ আদালত জানিয়েছে, যুদ্ধবিমান কেনার সিদ্ধান্ত গ্রহণ এবং দাম নির্ধারণের প্রক্রিয়ার মধ্যে কোনও ত্রুটি বা গলদ খুঁজে পায়নি আদালত তাই মামলা খারিজ করে বিচারপতিরা স্পষ্ট জানান, কতগুলি যুদ্ধবিমান লাগবে, কোন সংস্থা বরাত পাবে, বিমানের গুনগত মান কি হবে, কোন প্রযুক্তি ব্যবহৃত হবে, সেই সব বিষয় আদালতের বিচার্য বিষয় নয়। এছাড়াও অনিল অম্বানীর সংস্থা রিলায়েন্সকে বিমান তৈরির বরাত পাইয়ে দেওয়া প্রসঙ্গে আদালত জানায়, সমস্ত তথ্যের ভিত্তিতে স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে, পার্টনার ঠিক করেছে বরাতপ্রাপ্ত ফ্রান্সের সংস্থা দাসো এভিয়েশন । তাই এ নিয়ে কোন প্রশ্ন তোলারও কোন যৌতিকতা নেই । 


এইদিনের আদালতের রায়ের পর কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং জানান, কংগ্রেস যে ভোটের রাজনীতি করার জন্য মিথ্যে অপবাদ দিচ্ছিল তা আজ সারা দেশের মানুষের চোখে পরিষ্কার । জনগণের চোখে বেশিদিন মিথ্যের পর্দা দেওয়া জায় না, এক না একদিন সত্য সামনে আসেই । আজ আদালতের রায়ে সারা দেশ জেনে গেল, কংগ্রেসের লাগাতার মোদী সরকারের বিরুদ্ধে তোপ রাজনৈতিক ফায়দা লোটার চেষ্টা ছাড়া এটা আর কিছুই নয়। এর আগেও রাফায়েল ডিল নিয়ে ফ্রান্সের রাষ্ট্রপতি , উপ-রাষ্ট্রপতি এবং দাসো এভিয়েশন-ও তাদের বিবৃতি তে জানিয়েছিল রাফায়েল ডিল একদম স্বচ্ছ, আজ আদালত সেই তথ্যেই সিলমোহর দিল । 

তাই রাফায়েল ইস্যুতে লোকসভা ভোটের আগে আদালতের এই রায় রাহুল গাঁধী সহ অন্য বিরোধীদেরও “মোদী হাটাও, বিজেপি হাটাও” করতে গিয়ে ব্যবহৃত রাফায়েল দুর্নীতি অস্ত্র পুরো ভোঁতা করে দিল বলেই মত প্রকাশ করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা। 

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]