নিউজ ডেস্ক,শ্রীনগরঃ-

১৪ই ফেব্রুয়ারী ভরদুপুরে রক্তাক্ত বরফে ঢাকা কাশ্মীর। ভয়াবহ জঙ্গি হামলায় এখনও পর্যন্ত অন্তত ত্রিশ জন সিআরপিএফ জওয়ানের শহিদ হওয়ার খবর পাওয়া গিয়েছে। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে অনুমান করা হচ্ছে। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে শহিদদের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে জঙ্গিদের বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি। ভয়াবহ জঙ্গি হামলার কিছুক্ষণের মধ্যেই প্রধানমন্ত্রী ট্যুইটে লেখেন,‘পুলওয়ামায় সিআরপিএফের উওর হামলা নিন্দনীয়। আমাদের সাহসী জওয়ানদের এই বলিদান ব্যর্থ হবে না। শহিদ পরিবারের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে দাঁড়াবে গোটা দেশ। আহত জওয়ানদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করেছেন তিনি। এই বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং-এর সঙ্গে ও কথা বলেন মোদী। ইতিমধ্যেই কাশ্মীরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজনাথ সিং। জঙ্গি হামলার বদলা নেওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছেন অর্থমন্ত্রীও।
তিনি আরও জানান জঙ্গিদের উচিৎ শিক্ষা দেওয়া হবে। তাদের এই হামলার জন্য এমন শিক্ষা দেওয়া হবে, যা তারা ভুলতে পারবে না। একইসঙ্গে ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন তিনি। শহিদ জওয়ানদের পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর বার্তাও দিয়েছেন। ১৪ই ফেব্রুয়ারী ভরদুপুরে কাশ্মীরের অবন্তীপুরায় সিআরপিএফ কনভয়কে লক্ষ্য করে হামলা হয়। মৃত্যু হয়েছে আঠারো জন সিআরপিএফ জওয়ানের অন্তত পঁচিশ জন সিআরপিএফ জওয়ান আহত হয়েছে বলে খবর।
জানা যায় বিগত কিছুদিন ধরেই ওই হাইওয়ে বন্ধ রাখা হয়েছিল। রাজধানী শ্রীনগর থেকে কুড়ি কিলোমিটার দূরে এই হামলার ঘটনা ঘটল। বাসে অন্তত পঁয়ত্রিশ জন সিআরপিএফ জওয়ান ছিলেন বলে জানা গিয়েছে। ইতিমধ্যেই প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের জরুরি বৈঠক ডেকেছেন এনএসএ অজিত দোভাল এবং সঙ্গে উচ্চ পদস্থ আধিকারিকরাও রয়েছেন এই বৈঠকে। কীভাবে এই ঘটনা ঘটল তা জানতে তদন্ত করে দেখা হচ্ছে, জানিয়েছেন আইজি জুলফিকর হাসান। 

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]