নিউজ ডেস্ক, কলকাতাঃ- মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্ধ্যোপাধ্যায়ের মাওবাদী প্রেমের কথা তুলে ধরলেন বিজেপি নেতা মুকুল রায় 

ইসলামপুরের দারভিটে দুই ছাত্র খুনের প্রতিবাদে গত ২৬শে সেপ্টেম্বর বিজেপির ডাকা বন্ধের সফলতা নিয়ে আলোচনা করতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্ধ্যোপাধ্যায়ের সম্পর্কে মাওবাদী প্রেমের অভিযোগ আনল বিজেপি নেতা মুকুল রায় । এই দিন মুকুল রায় সরাসরি তৃনমূলের মাওবাদী প্রেমের কথা সকলের সামনে তুলে ধরে বলেন, রাজ্যে যখন সিপিএম এর রাজত্ব ছিল তখন সেই সময়কার বিরোধী নেত্রী মমতা ব্যানার্জি নানারকম কৌশল অবলম্বন করতেন যাতে সিপিএম কে রাজ্য থেকে সরানো যায়। তাই সেই সময় নন্দীগ্রামে সিপিএম কে আটকানোর জন্য মমতা মাওবাদীদের সাহায্য নিয়েছিল । এমনকি সেই সময় এই মমতা ব্যানার্জি-ই মাওবাদীদের নির্দেশ দিয়েছিল নন্দীগ্রামে রাস্তা কেটে দেওয়ার জন্য।  

যেই লালগড়, নন্দীগ্রাম, সিঙ্গুর আন্দোলনের কাঁধে ভর দিয়ে আজ পশ্চিমবঙ্গে শাসন করছে মমতা ব্যানার্জি, সেই আন্দোলনের ভেতরের কাহিনী প্রকাশ করে মুকুল রায় বলেন, রাজ্যে তখনকার বিরোধী দল তৃনমূল কংগ্রেস নন্দীগ্রামের জমি আন্দোলন সহ জঙ্গল মহলে লালগড় আন্দোলন কোনো কিছুতেই পেরে উঠছিলেন না সিপিএম এর সাথে তাই সেই সময় মাওবাদীদের সাহায্য নিয়েছিলেন তৃণমূল কংগ্রেস। অবশ্য আগেও বর্তমান বিরোধী রাজনৈতিক দল গুলি মমতা-মাওবাদী আঁতাত বোঝানোর চেষ্টা করলেও সরাসরি সেকথা বলার সাহস করে উঠতে পারে নি, কিন্তু এতদিনে মুকুল রায় সরাসরি অভিযোগ করলেন, নন্দীগ্রামে যখন মমতা আর পেরে উঠছিল না সিপিএম এর সাথে তখন তিনি মাওবাদীদের নির্দেশ দেন সেখানকার রাস্তা কেটে দেওয়ার জন্য।
   
প্রাপ্তন তৃনমূল নেতা ও মমতার সবচেয়ে কাছের লোক এবং বর্তমান বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের এই মন্তব্যের পরই উঠে এসেছে নানান প্রশ্ন, তার মানে কি এর আগেও যে রাজ্য রাজনীতিতে তৃণমূলের সাথে মাওবাদী যোগ প্রকাশ্যে চলে এসেছিল বহুবার, সেগুলো সবই সত্য ?? এমনকি একবার মাওবাদী নেতা কিষানজি প্রকাশ্যে বলেই ফেলেছিলেন যে, তারা মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে দেখতে চান তৃনমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে, এটা কি মাওবাদী প্রেমের কারনে ?? এবিষয়ে এই রকম প্রশ্নগুলি আবার মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর কাছে তুলল রাজ্যের শুভবুদ্ধিসম্পন্ন নাগরিকরা ।।  

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]