নিউজ ডেস্ক, নিউ দিল্লীঃ- মহাকাশ গবেষণায় এবার নাসাকে টেক্কা দিয়ে শ্রেষ্ঠত্বের আসনে ইসরো 

আগেই প্রথমবারের প্রচেষ্টায় আমেরিকার থেকে দশভাগের একভাগ খরচে মঙ্গলে যান পাঠিয়ে মহাকাশ গবেষণায় বিস্ময় সৃষ্টি করেছে ভারত । যেখানে ভারতের থেকে দশ গুন টাকা খরচা করে দুবারের প্রচেষ্টায় সাফল্য পেয়েছে আমেরিকা । মঙ্গলে ভারতের উপগ্রহের সাফল্য এখন দুনিয়ার কাছে বিস্ময় ।  ভারতীয় বিজ্ঞানদের চমকপ্রদ সাফল্য দিনের পর দিন পেছনে ফেলে দিচ্ছে নাসা সহ গোটা বিশ্বের মহাকাশ গবেষনাকারীদের । এই মুহূর্তে মহাকাশ গবেষণায় নাসা-র পরই রয়েছে ইসরোর স্থান । 

এবার, ইসরোর সাহায্যে মহাকাশে উপগ্রহ পাঠাতে চলেছে খোদ নাসা ।  হ্যাঁ, আজ সকাল ৯টা ৫৮মিনিট নাগাত শ্রীহরিকোটার সতীশ ধাওয়ান উপগ্রহ কেন্দ্র থেকে  তিরিশটি উপগ্রহকে নিয়ে মহাকাশের উদ্দেশ্যে পাড়ি দিয়েছে পি.এস.এল.ভি-সি ৪৩ নামক ১৭৫০ কেজি ওজনের এই দানব মহাকাশ যানটি । এরমধ্যে ২৩ টি আমেরিকার উপগ্রহ এবং বাকি ৭টি অন্য সাত দেশের। এরমধ্যে রয়েছে কানাডা, অস্ট্রেলিয়া, ফিনল্যান্ডের মত দেশ।

তবে এটাই প্রথম নয়, কিছুদিন আগেও ইসরো খুবই কম খরচায় মহাকাশে একসাথে অনেকগুলি ব্রিটেনের অত্যাধুনিক উপগ্রহ নিয়ে সফলতার সাথে পাড়ি দিয়েছিল ।  আর ভারতের মহাকাশ বিজ্ঞানীদের সেই সাফল্যই ভারতকে মহাকাশ বাণিজ্যে নতুন দিগন্ত তৈরি করে দিয়েছে ।  খরচা বাঁচাতে বিশ্বের সমস্ত দেশ থেকেই ইসরোর কাছে আসছে উপগ্রহ মহাকাশে পাঠানোর বরাত ।  

তাই শুধু বিশ্বের দরবারে ভারতকে প্রতিষ্ঠা করাই নয়, বাণিজ্যিকভাবে উপার্জনের নতুন দিগন্ত তৈরি করেছে ভারতের মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]