নিউজ ডেস্ক,শ্রীনগরঃ-

উরির পর সবচেয়ে বড় ভয়াবহ জঙ্গি হামলা হল কাশ্মীরে।কমপক্ষে ত্রিশ জওয়ানের শহিদ হওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।সংবাদমাধ্যম গুলির খবর অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার দুপুরে এই ভয়াবহ বিস্ফোরণে শহিদ হয়েছে আঠারো সিআরপিএফ জওয়ান।আশঙ্কা করা হচ্ছে শহিদের সংখ্যা আরও বাড়তে বলে।ইদানিং কালের মধ্যে ভারতে এটাই অন্যতম বড় জঙ্গি হামলা। আনুমান করা হচ্ছে কাশ্মীরের অবন্তীপুরায় ভয়াবহ আইইডি বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে।
পাক জঙ্গি সংগঠন জয়েশ-ই-মহম্মদ এই হামলার দায় স্বীকার করেছে।ঘটনার পর পরই স্থানীয় সংবাদ মাধ্যামে ঘটনার দায় স্বীকার করে বার্তা পাঠায় জয়েশ-ই-মহম্মদ।জয়েশ-ই-মহম্মদ মূলত পাকিস্তানের একটি জঙ্গি সংগঠন।পাকিস্তানের মাটিকে ব্যাবহার করেই ভারতের বিরধী জঙ্গি কার্যকলাপ সংগঠিত করে এইজয়েশ-ই-মহম্মদ।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য যে জয়েশ-ই-মহম্মদ চীফ মৌলানা মাসুদকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করার জন্য রাষ্ট্রপুঞ্জে একাধিকবার দরবার করেছে ভারত।দিল্লি পাঠানকোট হামলার পর থেকেই পাক জয়েশ-ই-মহম্মদ চীফ মৌলানা মাসুদকে রাষ্ট্রপুঞ্জের নিষিদ্ধ তালিকার অন্তর্ভুক্ত করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।কিন্তু পাকিস্তানের বন্ধু চিনের বাঁধাতেই সেই চেষ্টা বারবার ব্যার্থ হয়েছে। আজ আবার নতুন করে মাসুদ আজহারের ষড়জন্ত্রের শিকার ভারত।শ্রীনগর-জম্মু হাইওয়ের উপর দিয়েই বাসে চেপে যাচ্ছিল সিআরপিএফ জওয়ানরা।সেইসময়ই এই বিস্ফোরণটি ঘটে।এই বিস্ফোরণে আহত হয়েছেন কমপক্ষে পঁচিশ জন।বিগত কয়েকদিন ধরেই এই হাইওয়েটি বন্ধ রাখা হয়েছিল।শ্রীনগর থেকে মাত্র বিশ কিলোমিটার দূরেই এই হামলার ঘটনাটি ঘটল।বাসে অন্তত ৩৫ জন সিআরপিএফ জওয়ান ছিল বলে খবর। উরি হামলার পর  কাশ্মীরে এটাই সবচেয়ে বড় মাপের হামলা।

By admin

2 thoughts on “ভয়াবহ বিস্ফোরণের পরই পাকিস্তানের মাটি থেকে বার্তা এল জয়েশ-এর।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]