তরল জল বা বরফ বা পাতলা বায়ুমণ্ডলের হদিশ আগেই মিলেছিল মহাকাশের কয়েকটি ভিন গ্রহে। এবার হয়তো সত্যি সত্যিই আমাদের এই সৌরমণ্ডলের বাইরে কোনও ভিন গ্রহে প্রাণ সৃষ্টির গুরুত্বপূর্ণ উপাদানও খুঁজে পেল বিজ্ঞানীরা ।



আজই সেই যুগান্তকারী ঘোষণাই করতে চলেছে নাসা। ওয়াশিংটনের সদর দফতরে, ভারতীয় সময় রাত সাড়ে এগারোটায় সাংবাদিক সম্মেলনে। যেখানে হাজির থাকবেন নাসার সদর দফতরের অ্যাস্টোফিজিক্স ডিভিশনের জ্যোতির্বিজ্ঞানী পল হার্ৎজ, গুগলের সিনিয়র সফটওয়ার ইঞ্জিনিয়র ক্রিস্টোফার শ্যালু, নাসার এমস রিসার্চ সেন্টারের কেপসার প্রকল্পের বিজ্ঞানী জেসি ডটসন সহ আরও অনেক বিজ্ঞানীরা ।

নাসা সূত্রে খবর, এই যুগান্তকারী আবিষ্কারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে গুগলের বি়জ্ঞানী, গবেষকদের। কেপলার মহাকাশযান প্রকল্পের অন্যতম বাঙ্গালী বিজ্ঞানী ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ২০০৯ সালে ভিন গ্রহ খোঁজার জন্য কেপলার মহাকাশ যানকে পাঠানো হয়েছিল মহাকাশে। তার পর থেকে গত আট বছরে কেপলার এখনও পর্যন্ত ২,৩৩৭টি ভিন গ্রহের হদিস পেয়েছে, যে গুলি হয় চেহারা বা গঠনে পৃথিবীর মতো অথবা তাদের পৃথিবীর মতোই পুরু বায়ুমণ্ডল আছে। কেপলার মহাকাশযানে পাঠানো তথ্যাদি এই প্রথম পৃথিবীর গবেষণাগারে মেশিন লার্নিং পদ্ধতিতে বিশ্লেষণ করেছেন গুগলের বিজ্ঞানী ও গবেষকরা। সেখান থেকেই ভিন গ্রহে প্রাণ সৃষ্টির জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয় যৌন অণুর হদিস মিলেছে। এটাই গুগলের বিজ্ঞানী, গবেষকদের অবদান।

জ্যোতির্বিজ্ঞানীদের আরও বক্তব্য, পৃথিবীর মতো আরও একটি বাসযোগ্য গ্রহের হদিশ মিলেছিল ২০১৫ সালে। তার নাম কেপলার-৪৫২বি। এই ভিন গ্রহটি আকারে একেবারেই পৃথিবীর মতো। এবং এটিও রয়েছে তার নক্ষত্র থেকে ‘গোল্ডিলক্স জোন’ দূরত্বে।


By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]