নিউজ ডেস্ক, বিশেষ প্রতিবেদনঃ- ভারতের বিকাশ, কিভাবে সম্ভব ?? যখন ভারতীয় রেলের সম্পত্তি চুরি করছে খোদ রেলযাত্রীরাই । 

ভারতীয় রেলওয়ে সবসময় ভারতের কিছু নিকৃষ্ট শ্রেনির নাগরিকদের একটি নরম লক্ষ্য হয়ে উঠেছে । রেললাইনের লোহা এবং অন্যান্য অবশিষ্ট লৌহজাত দ্রব্যের চুরি, হেডফোন চুরি করা, নতুন ট্রেনের জানালার কাঁচ ভাঙ্গা, সিটের টিভি স্ক্রীনগুলি ভাঙ্গা বারবার প্রমাণ করেছে যে, জাতীয় সম্পদ কীভাবে সুরক্ষিত রাখা উচিত তা বোঝার জন্য এখনও ভারতীয় রেলকে দীর্ঘ পথ অতিক্রম করতে হবে । 

প্রসঙ্গত, বলতে হয় একটি সমীক্ষার ফলাফলে দেখা গেছে ভারতীয় রেলওয়ের গত চারটি অর্থবর্ষে প্রায় ৪০০০ কোটি টাকা ক্ষতি হয়েছে, আর এই ক্ষতির কারন হল ট্রেনগুলিতে চুরি । পশ্চিম রেলওয়ে কর্তৃক প্রকাশিত সমীক্ষার রিপোর্ট অনুযায়ী গত চার বছরে বেশী দূরত্বের ট্রেনে চলাচলকারী যাত্রীরা ১.৯৫ লক্ষ টাওয়াল, ৮১৭৩৬টি বিছানার চাদর, ৫৫৫৭৩টি বালিশের কভার, ৫০৩৮টি বালিশ এবং ৭০৪৩টি কম্বল চুরি হয়েছে। শুধু এখানেই শেষ নয়, চুরি যাওয়া জিনিসপত্রের তালিকায় রয়েছে ২০০টি টয়লেট মগ, প্রায় ১০০০টি টিপ কল এবং ৩০০টি ফ্লাশ পাইপও । 

রিপোর্টে আরও জানা যায়, ২০১৭-২০১৮ সালে রেলওয়ে সুরক্ষা বাহিনী (আরপিএফ) চুরি যাওয়া রেলের সম্পত্তির মধ্যে প্রায় ২.৯৭ কোটি টাকা মূল্যের জিনিসপত্র উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছিল। এছাড়াও রেলওয়ে সিপিআরও সুনীল উদাসী জানান, এপ্রিল থেকে সেপ্টেম্বর ২০১৮ এরমধ্যে প্রায় ৭৯৩৫০টি হাত তোয়ালে, ২৭৫৪৫টি শয্যা, ২১০৫০টি বালিশের কভার, ২১৫০টি বালিশ এবং ২০৬৫টি কম্বল চুরি করার সময় ধরা পড়েছিল যার মোট মূল্য ছিল ৬২ লাখ টাকা । এরমধ্যে সর্বশেষ চুরির ঘটনায়, তিনটি কম্বল, ছয়টি শয্যা ও তিনটি বালিশ চুরি করার চেষ্টা করাকালীন রতমালের একজন অধিবাসীকে সোমবার গ্রেপ্তার করা হয়। অভিযুক্ত, শাব্বির রোটিওয়ালা মুম্বাইয়ে বান্দ্রা টার্মিনাস থেকে দীর্ঘ দূরত্বের ট্রেনের এসি কামরা থেকে চুরির চেষ্টা করেছিলেন, কিন্তু বিষয়টি রেলওয়ে সেবকদের নজরে আসায় তাকে হাতেনাতে ধরা হয় ও পরে তাকে রেলওয়ে সুরক্ষা বাহিনীর হাতে তুলে দেওয়া হয় । 

পশ্চিম রেলওয়ে কর্তৃক প্রকাশিত এই তথ্য সত্যি আমাদের সকলের ভারতবাসী হিসাবে যে গভীর লজ্জায় ফেলেছে তা আর বলার অপেক্ষা রাখেনা । ভারতীয় রেলের উন্নতি কিভাবে হবে ? যদি যাত্রীদেরই মানসিকতা এতটাই নিকৃষ্ট মানে হয় ?? সারাদিন আচ্ছে দিন কোথায়, আচ্ছে দিন কোথায় বলে গলা ফাটান, তাদের কাছে একটাই অনুরোধ আগে নিজেদের বদলান, তার পরেই না হয় আচ্ছে দিন এর প্রত্যাশা করবেন । 

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]