নিউজ ডেস্ক,নয়া দিল্লীঃ-

ভারতকে যুদ্ধের হুঁশিয়ারি দিলেন পাক মন্ত্রী।কিছুদিন আগেই পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ভারতকে হুঁশিয়ারি দিয়েছিল যুদ্ধ হলে যোগ্য জবাব দেওয়া হবে বলে। এরপরই এক ভিডিও বার্তায় ভারতকে হুঁশিয়ারি দেন ইমরান মন্ত্রীসভার আর এক মন্ত্রী সসস্য শেখ রশিদ আহমেদ।তিনি ট্যুইটারে একটি ভিডিও পোস্ট করে বলেছেন, ‘কেউ যদি পাকিস্তানের দিকে কুনজরে দেখে, তাহলে সেই চোখ উপড়ে নেওয়া হবে।তাহলে আর গাছও জন্মাবে না, পাখিও ডাকবে না, মন্দিরে বাজবে না ঘণ্টা।ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে জবাব দিয়ে ইনি বলেন,”যদি ভারত পাকিস্তানের হামলার একটুকু চেষ্টা করে, তাহলে পাকিস্তান কড়া জবাব দেবে”। এমনকি ভারতের প্রয়োজনে মিসাইল ছোঁড়ার হুঁশিয়ারিও দেন তিনি। বলেন, “আমরা আমাদের বাজিগুলো দিওয়ালির জন্য জমিয়ে রাখিনি”।
পাক মন্ত্রী শেখ রশিদ আহমেদ সরাসরি  প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে আক্রমণ করে বলেন,মোদী নাকি পাঁচ রাজ্যের নির্বাচনে পরাজয়ের পরেই সেনাবাহিনীকে যুদ্ধের জন্য গ্রিন সিগন্যাল দিয়েছেন। ভোটের জন্য মুসলিমদের উপর অত্যাচার করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেছেন তিনি।পুলওয়ামা হামলা নিয়ে ২২শে ফেব্রুয়ারী সাংবাদিক সন্মেলনে বিস্ফোরক মন্তব্য করেন পাক সেনার মুখপাত্র মেজর জেনারেল আসিফ গফুর বলেন ভারত কোনও প্রমাণ ছাড়াই পাকিস্তানকে লাগাতার আক্রমণ করে যাচ্ছে।সম্প্রতি রাওয়ালপিন্ডিতে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হন আসিফ গফুর।পাক সেনার এই অফিসারের আরও হাস্যকর দাবি, ভারত এখনও দুটি দেশ ভাগ হয়ে যাওয়ার বাস্তবতাকে মেনে নেয় নি।১৯৬৫ সালে ভারত পাকিস্তানের ওপর যুদ্ধ চাপিয়ে দিয়েছে এবং আত্মরক্ষার কথা বলে পরমাণু অস্ত্র বানিয়েছে।এছাড়াও ভারত সবসময় জঙ্গিদের দিয়ে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে আসছে।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]