নিউজ ডেস্ক, কলকাতাঃ- মেদিনীপুরে যে দিনে দিনে বিজেপির উত্থান হচ্ছে আর তাতে যে তৃণমূল সিঁদুরে মেঘ দেখছে তার প্রমান দিল খোদ তৃণমূল কংগ্রেস । 


জানা যায়, পশ্চিম মেদিনীপুরের গড়বেতা-২ ব্লকে পঞ্চায়েত বোর্ড গঠনের আগে বিজেপির মনোনীত প্রধানকে অপহরণের অভিযোগ উঠল শাসকদল তৃণমূলের বিরুদ্ধে । সোমবার গড়বেতা-২ ব্লকের পাথরপাড়া-৪ গ্রাম পঞ্চায়েতে বোর্ড গঠনের দিন ছিল কিন্তু বিকেল চারটে পর্যন্ত বোর্ড গঠন করা সম্ভব হয়নি কারন বিজেপির মনোনীত প্রধানে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না , তারপরই তৃণমূলের বিরুদ্ধে তাদের হবু প্রধানকে অপহরণের অভিযোগ তোলে স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব । ঘটনার জানাজানি হতেই উক্ত গ্রাম পঞ্চায়েত কার্যালয় চত্বরে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়াতে থাকে , বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন বিজেপির কর্মী-সমর্থকরা৷ 


সূত্রের খবর অনুসারে, গড়বেতা-২ ব্লকের পাথরপাড়া-৪ গ্রাম পঞ্চায়েতে মোট আসন সংখ্যা ১০ যার মধ্যে বিগত পঞ্চায়েত নির্বাচনে তৃণমূল ৫টি ও বিজেপি ৪টি আসনে জয় লাভ করে৷ ১টি আসন পায় নির্দল প্রতিদ্বন্দ্বী ।  কিন্তু বোর্ড গঠনের কয়েকদিন আগে তৃণমূলের অন্তঃদ্বন্দ্বের ফলে দল ছাড়েন তৃণমূলের নির্বাচিত ২জন সদস্য এবং যোগদান করেন বিজেপিতে যারফলে আচমকাই বদল ঘটে পরিস্থিতির ৷ এই ঘটনার পর পাথরপাড়া-৪ গ্রাম পঞ্চায়েতে বিজেপি সংখ্যাগরিষ্ঠ হয়৷ তার পরই রুমা মান্নাকে প্রধান পদে মনোনীত করা হয়৷ তবে তৃণমূলের তরফে বিজেপির তোলা অভিযোগকে সম্পূর্ণ মিথ্যা বলে পুরোপুরি অস্বীকার করা হয় ৷

তবে প্রতিনিয়ত বিজেপি কর্মীদের ওপর আক্রমন , অপহরণের মত ঘটনা যে পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূলের ইমেজকে কালিমালিপ্ত করছে তা বলা বাহুল্য । বিশেষজ্ঞদের মতে, মোদী ম্যাজিককে কাজে লাগিয়ে যেভাবে বঙ্গে বিজেপি একের পর এক পদ্ম ফোটাচ্ছে তাতে কূলকিনারা হারিয়ে তৃণমূল এমন ধরনের কাজ করছে , আর তাতে পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির ভীত যে আরও শক্ত হচ্ছে তা বলার অপেক্ষা রাখে না ।   

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]