নিউজ ডেস্ক ত্রিপুরা ঃ-

রক্ত ঝরতে শুরু হয়েছে রাজ্যে সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনে দ্বিতীয় দফার ভোটের প্রথম ঘন্টাতেই৷ সংবাদমাধ্যমের কর্মী থেকে সাধারণ ভোটাররা আক্রান্ত হয়েছে গোয়ালপোখর থেকে মালবাজার বিভিন্ন জায়গাতে৷ অভিযোগের তীর রাজ্যের শাসক দলের দিকে৷ বিজেপির নির্বাচনী কার্যালয় জ্বালিয়ে দেওয়া হয় রায়গঞ্জের মালবাজারে ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের দুইশ মিটারের বাইরে, এক্ষেত্রেও বিজেপির পক্ষ থেকে সোজাসুজি তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠছে৷ বিজেপির নির্বাচনী কার্যালয় জ্বালিয়ে দেওয়ার পাশাপাশি এই কার্যালয়ের কর্মীদের মারধোর করা হয়েছে বলেও সংবাদমাধ্যমে খবর৷ যদিও রায়গঞ্জ তৃণমূলের পক্ষ থেকে হামলার কথা অস্বীকার করেছেন৷ অন্যদিকে রাজ্যে দ্বিতীয় দফায় ভোটে রায়গঞ্জের হেমতাবাদের মহজমপুরে ইভিএম-এ তৃণমূলের সিগনেচার রয়েছে তাই রাজ্যের শাসক দলের বিরুদ্ধে ইভিএম হ্যাকের অভিযোগ তুলে ভোট কেন্দ্রের বাইরে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন এই বুধের সাধারণ ভোটাররা৷ কেন্দ্রের ভোটাররা সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ‘‘ ইভিএমে অন্য কোনও দলের সিগনেচার না থাকলেও তৃণমূলের সিগনেচার রয়েছে৷ আমরা বিষয়টি প্রিসাইডিং অফিসারকে জানিয়েছি৷ তিনি বলেছেন ওটাতে কোনও অসুবিধে নেই৷ আমরা ওঁকে বিশ্বাস করতে পারছি না৷ এই বুথে শুধু রাজ্যে পুলিশ রয়েছে আমরা ওদের বিশ্বাস করি না৷ ওরা তৃণমূলের হয়ে কাজ করছে৷ কেন্দ্রবাহিনী না এলে আমরা এই বুথে ভোট শুরু হতে দেব না৷’’

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]