নিউজ ডেস্ক কলকাতা ঃ-

৩রা মে সকালে ওড়িশা উপকূলে আছড়ে পড়েছে প্রবল শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ফণি। ভূভাগে প্রবেশ করার পর ধীরে ধীরে উত্তর-পূর্ব দিকে এগোচ্ছে ফণি। স্থলভাগে প্রবেশের পর প্রবল শক্তিশালী থেকে বর্তমানে অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়েছে ফণি। সময়ের সঙ্গে খানিকটা শক্তি কমলেও, ফণির তাণ্ডবে দক্ষিণবঙ্গ জুড়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা করা হচ্ছে। ফণির দাপটে ৩রা মে রাতে কলকাতা ও লাগোয়া জেলাগুলিতে ব্যাপক ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। রাত যত বাড়বে, তত বাড়বে ঝড়ের দাপট।
আবহবিদরা জানাচ্ছেন, পশ্চিম মেদিনীপুর, বাঁকুড়া, বর্ধমান, বীরভূম ও মুর্শিদাবাদের উপর দিয়ে যাবে ঘূর্ণিঝড়ের কেন্দ্র। যার জেরে গোটা দক্ষিণবঙ্গ জুড়ে প্রবল বর্ষণের আশঙ্কা রয়েছে। পূর্বাভাস অনুযায়ী, ৪ঠা মে সকাল ৭টা নাগাদ কলকাতার সবচেয়ে কাছে থাকবে ঘূর্ণিঝড়ের কেন্দ্রটি। অতি শক্তিশালী থেকে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় হয়ে কলকাতায় ঢুকবে ফণি। ঝড়ের গতিবেগ হতে পারে ৯০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা থেকে সর্বোচ্চ ১১৫ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা। ঝড়ের গতিবেগ হবে ৯০ থেকে ১০০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টায়। ৪ঠা মে সন্ধ্যার পর থেকে দক্ষিণবঙ্গে পরিস্থিতির উন্নতি হবে। ৫ই মে সব দুর্যোগ কেটে যাবে বলে জানা যায়।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]