নিউজ ডেস্ক, নিউ দিল্লীঃ- সিকিমে চীন সীমান্তে বিমানবন্দরের পর এবার পাক অধিকৃত কাশ্মীর ও চিন সীমান্তের মাঝে রেল পরিষেবা চালুর পথে ভারত । 

ভারতের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে, চীনা আগ্রাসন রুখতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আগামী ২৩ শে সেপ্টেম্বর চীন সিমান্ত থেকে মাত্র ৭০ কিলোমিটার দূরে চালু করতে চলেছে সিকিমের প্রথম বিমানবন্দর, পাইয়ং বিমানবন্দর । সিকিম সীমান্তে এই বিমানবন্দর চালু হয়ে গেলে খুব কম সময়েই প্রয়োজনীয় সামগ্রী পৌঁছে যাবে ভারতীয় সেনাবাহিনীর কাছে । কিন্তু কাশ্মীর সীমান্তে শুধু চীন একা নয়, তারওপর পাকিস্থান দোসর । তাই এবার পাক অধিকৃত কাশ্মীর ও চিন সীমান্তের মাঝে রেল পরিষেবা চালুর পথে ভারত ।  

প্রসঙ্গত, সীমান্ত লাগোয়া সংবেদনশীল এই এলাকায় রেললাইন বসানোর ক্ষেত্রে প্রতিরক্ষার বিষয়টিও বিশেষভাবে জড়িত , সেই সাথে জড়িত প্রযুক্তিও কারন এখানকার ভৌগলিক পরিবেশ ও অবস্থান প্রতিকূল । যাত্রাপথে রয়েছে বড় বড় পাহাড়, নদী, জঙ্গল, টিলা সবই । তাই ভূ-বিদ, ইঞ্জিনিয়র এবং সেতু তত্ত্বাবধায়করা একসাথে পরীক্ষা নিরীক্ষা চালিয়ে স্থাপন করতে চলেছে রেলপথ । হিমাচল প্রদেশের বিলাসপুর থেকে মানালি হয়ে লাদাখের লে পর্যন্ত রেলপথ বসানোর ভারতীয় রেলের পরিকল্পনাকে বাস্তবায়িত করতে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক ও রেল মন্ত্রকের থেকে ২০১৬-১৭ অর্থবর্ষে প্রথম পর্যায়ে যথাক্রমে ১৫৮ কোটি টাকা ও ৪০ কোটি টাকা বরাদ্দ হয়েছে । 

প্রকল্পিত এই রেলপথের যাত্রাপথে অজস্র সমস্যা থাকায় নতুন নতুন পন্থা ও প্রযুক্তির ব্যবহার করতে চলেছে ভারতীয় রেল অধিনস্ত সংস্থা রাইটর্স । এই যাত্রাপথেই চেনাব নদীর ওপর হচ্ছে তৈরি হবে পৃথিবীর সব থেকে উঁচু রেল ব্রিজ, যার উচ্চতা ৩৫৯ মিটার, যা প্যারিসের আইফেল টাওয়ারের(৩২৪ মিটার) থেকেও ৩৫ মিটার উঁচু । যার দৈর্ঘ্য ১.৩ কিলোমিটার , ১৭টা বীমের ওপর দাড়িয়ে থাকবে ব্রিজটি । সবথেকে বড় পিলারটির উচ্চতা ১৩৩.৭ মিটার এবং মাঝের যেই গোলাকৃতি বীমের ওপর ব্রিজটি দাড়িয়ে থাকবে তার দৈর্ঘ্য ৪৮৫ মিটার । এই ব্রিজটি তৈরি করতে মত খরচ ধরা হয়েছে ৫১২ কোটি টাকা । ইংল্যান্ডের ডেইলি মেল নামক একটি সংস্থার সমীক্ষা থেকে জানা যায়, পৃথিবীর সব আকাশচুম্বী সৌধ গুলির মধ্যে ইতিমধ্যে ৫ নম্বরে নিজের জায়গা করে ফেলেছে চেনাব নদীর ওপর নির্মিয়মান ভারতীয় রেলের এই সেতু ।  

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]