নিউজ ডেস্ক, দীপা দাস, কলকাতাঃ- পুলিশ উদাসীনতা নাকি মালিকদের ইউরোপ ভ্রমণ ?? 

কেটেগিয়েছে বেশ কয়েকটা দিন । এখনও দূর থেকে পোড়া ঝলসে যাওয়া  ছতলা  বাড়িটা থেকে পোড়া গন্ধ ভেসে আসছে । কলকাতার ব্যস্ততম এলাকা বড়োবাজারের বাগড়ি মার্কেটের ভয়াবহ অগ্নি কান্ড এখনও সবার চোখে ভাসছে । পুজোর মুখে এমন ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে হাজার হাজার সাধারণ মানুষ এখন কর্মহীন । নিজেরা কি করে চলবে বা পরিবারের মুখেই অন্ন কিভাবে তুলে দেবে খবরই রাখছেনা কেউ । হাজার হাজার কর্মচারী, হাজার হাজার মুটিয়া-র  কর্ম সংস্থান জড়িয়ে রয়েছে ওই বাগড়ি মার্কেটে ।

কিন্তু যারা অপরাধী, যাদের এই ইমারত, যারা ভুল নকশা দেখিয়ে অবৈধ ভাবে দোকান দিয়েছিল ব্যবসায়ীদের তারা নিশ্চিন্তে  ইউরোপ ঘুরে বেড়াচ্ছে । অগ্নি কাণ্ডের আগেও মার্কেটের নিরাপত্তা দিয়ে প্রশাসন ছিল উদাসীন ও অজ্ঞাত আর এত বড় ক্ষতি হয়ে যাওয়ার পরও পুলিশ বা প্রশাসনের কোন হেলদলই চোখে পড়ছে না । তারা নাকি জোর কদমে তদন্ত চালাচ্ছে ! অথচ বাগড়ি মার্কেটের মালিক কর্তৃপক্ষ রাধা বাগড়ি ও ছেলে বরুন রাজ বাগড়ি টিকিটিও খুঁজে পাওয়া যাচ্ছেনা এখনো পর্যন্ত । 


যদিও গত ১৯শে সেপ্টেম্বর তাদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন ব্যাঙ্কশাল কোর্টের বিচারক মনদীপ দাশগুপ্ত । এদিকে চোর পালানোর পরে জানা যাচ্ছে লালবাজার পুলিশ কর্তৃপক্ষ বাগড়ি মালিকদের বিদেশ পালানো রুখতে লুক আউট নোটিশ জারির সিদ্ধান্ত নিয়েছিল । প্রসঙ্গত, এর আগেও পোস্তা কাণ্ডের অভিযুক্ত, ব্রিজ ভেঙে পড়াকে ন্যাচারাল ডিজাস্টার বলে চালিয়ে দিয়েছিলেন, ফলে এতবড় ক্ষতি হওয়া সত্বেও , এতগুলি প্রান যাওয়া সত্বেও অভিযুক্তরা বর্তমানে নিশ্চিন্তেই রয়েছেন থুড়ি অধরাই রয়েছেন । বর্তমানে বাগড়ি কাণ্ডেও কি একই ঘটনার রিপিট টেলিকাস্ট হবে ?? তা জানতে চায় রাজ্যবাসী । 

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]