নিউজ ডেস্ক নয়াদিল্লী ঃ-

ভারতীয় পাসপোর্ট, আধার কার্ড, প্যান কার্ড রয়েছে৷ কিন্তু সবই জাল৷ আর এই জাল পরিচয় পত্র দেখিয়ে গত ২ দশক ধরে ভারতে নির্বিঘ্নে বসবাস করে চলেছেন এক পাকিস্তানি দম্পতি৷ পুলিশ বিশেষ সূত্রে খবর পেয়ে তাদের গ্রেফতার করে৷ তারপরেই সামনে আসে পুরো ঘটনা৷ ওশিওয়ারা থানার পুলিশ ৫৫ বছরের আহমেদ দৌদানি ও তাঁর ৫৩ বছর বয়সী স্ত্রী আসরাফকে ১৮ই এপ্রিল আন্ধেরির(পশ্চিম) গ্রিন পার্ক সোসাইটি থেকে গ্রেফতার করে৷ জেরায় ওই দম্পতি জানিয়েছে, ১৯৯৯ সালে পাকিস্তান থেকে ভারতে আসে৷ তারপর মুম্বই এ দীর্ঘদিন বসবাস করে৷ টাইমস অফ ইন্ডিয়া ডেপুটি পুলিশ কমিশনার পরমজিত সিং দাহিয়াকে উদ্ধৃত করে জানিয়েছে, আহমেদ আগে ভারতের নাগরিক ছিল৷ ১৯৮৬ সালে পাকিস্তান চলে যায়৷ ওখানে গিয়ে ভারতীয় নাগরিকত্ব হারায়৷ তারপর আসরাফকে বিয়ে করে এবং পাকিস্তানের নাগরিকত্ব গ্রহণ করে৷ পুলিশ তাঁকে জেরা করে জানতে চাইছে কেন সে মুম্বই ছেড়ে পাকিস্তান চলে যায়? কেনই বা সে ফিরে আসে? দ্বিতীয় প্রশ্নের জবাবে আসরাফ পুলিশকে জানায়, পাকিস্তানে তাঁর আর থাকতে ভালো লাগছিল না৷ তাই ১৯৯৯ সালে দুই মেয়ে ও স্ত্রীকে নিয়ে ভারতে চলে আছে৷ ভারতে আসার পর মীরা রোডে প্রথমে থাকা শুরু করে৷ তারপর ২০০৮ সালে আন্ধেরীতে চলে যায়৷ তারপর জাল নথি দেখিয়ে আধার কার্ড, প্যান কার্ড ও পাসপোর্ট তৈরি করে৷ পুলিশকে আসরাফ আরও জানায়, মীরা রোডে থাকাকালীন এক এজেন্টের সাথে তাঁর পরিচয় হয়৷ সেই আসরাফ ও তাঁর পরিবারের জন্য ভারতীয় পাসপোর্ট তৈরি করে দেয়৷ ওই এজেন্টের সুবাদেই আধার ও প্যান কার্ড পেয়ে যায় আসরাফ ও তাঁর পরিবার৷

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]