নিঊজ ডেস্ক, নিউ দিল্লীঃ-
 মাত্র কয়েক দিন  আগেই আর্থিক দিক থেকে পিছিয়ে পড়া জেনারেল কাস্টকে দশ শতাংশ সংরক্ষন দেওয়ার পর এবার কেন্দ্রীয় সরকার দেশের সরকারি কর্মচারীদের জন্য বিশেষ প্লানিং করেছে। লোকসভার আগে নরেন্দ্র মোদী সরকারি কর্মচারীদের উপহার দেওয়ার জন্য বিচার বিবেচনা শুরু করছে। সরকারি কর্মচারীদের দাবি মোতাবেক এবার সরকার তাদের পছন্দসই স্থানে স্থানান্তর গ্রহণের সুপারিশকে স্বীকৃতি দিতে চলেছে খুব শীঘ্রই। সরকারের এই সিদ্ধান্তের ফলে আডাই লক্ষ কর্মচারী সুবিধা লাভ করবে।সূত্রের খবর, কেন্দ্রীয় সরকার গ্রামীন ডাক বিভাগের সমস্ত শ্রেণীর লিমিটেড ট্রান্সফার সুবিধার সমস্থ সুপারিশকে স্বীকার করে নিয়েছে।উল্লেখ্য গ্রামীন ডাক সেবক শুধুমাত্র এক বার ট্রান্সফার নিতে পারে তবে মহিলা ডাক সেবক দুইবার ট্রান্সফার নিতে পারে।সিধান্ত অনুযায়ী, কর্মচারীরা নিজের ইচ্ছামত এলাকায়,গ্রামে,শহরে, এমনকি নিজের বাড়ির কাছেও ট্রান্সফার নিতে পারবে।আসলে বাড়ির এলাকা থেকে দূরে কর্মস্থল পছন্দ না হওয়ায় কর্মচারী অনেক সময় অখুশি ব্যাক্ত করে। মোদী সরকার লোকসভার আগে কর্মচারীদের  এই ট্রান্সফার পলিসি উপহার দিয়ে তাদের মন জয় করতে চাইছে।
এ ক্ষেত্রে সরকার কর্মচারীদের জন্যে একটা শর্তও রেখেছে। শর্ত অনুসারে যে সকল কর্মচারী ট্রান্সফার নেবেন তার চাকুরীর মেয়াদ অন্তত তিন বছর হতে হবে।কোনো কর্মচারী বদলি চাইলে তাকে প্রথেম সরকারের কাছে আবেদন করতে হবে এরপর বিবেচনার পর বদলির সিদ্ধান্ত হবে।বদলির জন্য সমস্ত প্রয়িজনীয় শর্ত পূরণ করতে হবে ঐ কর্মচারীকে।এক্ষেত্রে যদি ঐ কর্মচারীর উপর পুলিশি তদন্ত বা অনুসন্ধানমূলক কিছু চলে তবে তিনি এই বদলির সুবিধা ভোগ করতে পারবেন না। সামনেই সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচন আর তার আগে সরকার জনগণকে নিজের দিকে টানার জন্য চেষ্টা করছে। ২০১৯ এ পুনরায় যাতে মোদী সরকার ক্ষমতায় ফিরে আসতে পারে এর জন্য পুরোদস্তুর  কাজ শুরু হয়ে গেছে। এর জন্য কেন্দ্রীয় সরকার যুবক,মহিলা,মধ্যবিত্ত,প্রবীণ সহ সাধারণ মানুষের জন্য একের পর এক জনমুখি সিদ্ধান্ত নিয়েই চলেছে।
         

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]