নিউজ ডেস্ক, মালদা :- চলবে নামাজ, তাই বন্ধ রাখতে হবে পুজো এবার এমনটাই দাবি উঠল মালদায় । 

গত রবিবার মালদার মোথাবাড়ি থানার অন্তর্গত আমলিতলা জামে মসজিদ কর্তৃপক্ষ কাছ থেকে একটি চিঠি গেল মোথাবাড়ি থানায়। কি লেখা ছিল সেই চিঠিতে ? কেনইবা সেই চিঠি তুলে আনল পশ্চিমবঙ্গ কে পাকিস্তান বানানোর যে প্রসঙ্গ সোশ্যাল মিডিয়া, নিউজ চ্যানেল থেকে শুরু করে প্রতিটি মানুষের ঘরের আনাচে কানাচে ঘুরে বেড়াচ্ছে তার সত্যতাকে । 

একবার ভালো করে দেখুন চিঠিটি । দেখুন সেখানে কি লেখা আছে । এই চিঠিতে মালদার অমলিতলা জামে মসজিদের সেক্রেটারি মোহাম্মদ আশরাউল হক মালদা মোথাবাড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিককে জানাচ্ছে যে, মসজিদে নামাজ চলার সময় যেন দুর্গাপুজোর মণ্ডপের মাইক বন্ধ থাকে । চিঠিতে আজানের সময় সূচি উল্লেখ করে বলা আছে যে সেই সময় নাকি মণ্ডপে মাইক বাজালে তাদের আজানে সমস্যার সৃষ্টি হবে । তাই তারা পুলিস আধিকারিকের কাছে আবেদন জানাচ্ছে যেন আযানের সময় ওই এলাকার পুজো মণ্ডপ গুলির সমস্ত মাইক বন্ধ রাখা হয় । 

আর এখানেই উঠতে শুরু করেছে প্রশ্ন, এ কোন পশ্চিমবঙ্গে বাস করছি আমরা ? যেখানে বাঙালীর প্রধান উৎসব দুর্গাপূজার মাইক নামাজের জন্য বন্ধ রাখতে হবে ? সেটাও আবার আবেদন করে থানায় জানানো হচ্ছে অপরদিকে ইতিমধ্যে পশ্চিমবঙ্গ মহরম এর জন্য পুজোর ভাসান বন্ধ, বিদ্যালয় সরস্বতী পূজা বন্ধ, বিদ্যালয়ে জয় শ্রীরাম বলায় ছাত্রকে মুসলিম শিক্ষকের মার, হিন্দুদের মন্দির ভেঙে দেওয়া, দেবদেবীর মূর্তি নষ্ট করে দেওয়া সহ পশ্চিমবঙ্গ সরকারের অতিরিক্ত মুসলিম তোষণ নীতি সারা ভারতবর্ষে সামনে পশ্চিমবঙ্গ কে প্রশ্নচিহ্নের সামনে দাঁড় করিয়েছে ঠিক সেই সময় নামাজের অজুহাত দেখিয়ে বাঙালির ভাবাবেগে আঘাত ও বাঙালির দুর্গাপূজার মাইক বন্ধ করার এই আবেদনপত্র কিন্তু পশ্চিমবঙ্গের মানুষ কে আবারো চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিল যে তারা কোন পশ্চিমবঙ্গে বাস করছে বলে মত বিশেষজ্ঞদের । 

By admin

One thought on “নামাজের সময় বন্ধ পুজোর মাইক”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]