নিউজ ডেস্ক,কলকাতাঃ-

দুর্নীতির বিরুদ্ধে তদন্ত করতে গিয়ে মমতার পুলিশের হাতে আটক সিবিআই কর্তারা।এর আগে চারবার চিটফান্ড কাণ্ডে কলকাতার পুলিশ কমিশনারকে তলব করা হয়। কলকাতার পুলিশ কমিশনারের উত্তর সন্তোষ জনক ছিলনা বলে দাবি করে সিবিআই।

সিবিআই আধিকারিকরা সারদা কান্ডেব অভিযুক্ত দেবযানি মুখোপাধ্যায়কে জেরা করে জানতে পারেন ঘটনার পর যে অভিযান হয়েছিল সেই অভিযানের সময় কলকাতা পুলিশের আধিকারিকরা মিডল্যান্ড পার্কের অফিস থেকে একটি পেন ড্রাইভ ও লাল ডায়েরি বাজেয়াপ্ত করেছিল বলে জানতে পেরেছিল সিবিআই এর কর্তারা। কিন্ত সিবিআইয়ের দাবি তদন্তভার হস্তান্তরের সময় সেই পেন ড্রাইভ ও ডায়েরি পাননি।প্রশ্ন হল  কোথায় গেল এই পেন ড্রাইভ ও লাল ডায়েরি, এরই তদন্তে আসে সিবিআই।

কলকাতার পুলিশ কমিশনারই এব্যাপারে ঠিকঠাক উত্তর দিতে পারে বলে মনে করে সিবিআই। আর সেই মর্মেই কলকাতা পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের বাড়িতে হানা দিয়েছিল সিবিআই।রাজীব কুমারের বাড়ির সামনে থেকেই সিবিআই আধিকারিকদের আটক করে নিয়ে যাওয়া হয়েছে শেক্সপিয়র থানায়।  সিজিও কমপ্লেক্স এও মোতায়েন করা হয়েছে বিশাল পুলিশ বাহিনী।সিজিও কমপ্লেক্স থেকে যাতে সিবিআই আধিকারিকরা বের হতে না পারে, সে জন্যই মোতায়েন করা হয়েছে বিশাল পুলিশ বাহিনী।পুলিশ কমিশনারের বাড়ির সামনে প্রকাশ্যেই সিবিআইয়ের সঙ্গে ঝামেলায় জড়ায় কলকাতা পুলিশ। এর আগে আজই মমতা বানাজী টুইট করে পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের কে পৃথিবীর বেষ্ট অফিসারদের মধ্যে একজন।  
আজ বিকেলেই কলকাতা পুলিশের তরফে বলা হয়, কলকাতা পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে সিবিআই তদন্তের খবর ভুয়ো। জাভেদ শামিম দাবি করেন এই খবর যারা ছড়াচ্ছে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে। এরপর কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই সিবিআই অফিসাররা পৌঁছে গেল রাজীব কুমারের বাড়ির সামনে।  

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]