নিউজ ডেস্ক, দীপা দাসঃ- ডেঙ্গুতে কেড়ে নিলো আরো একটা প্রাণ

শহরে  একের পর এক ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা বাড়লেও, কোন হেলদোল নেই রাজ্য সরকারের । এই মুহূর্তে কলকাতা যেন ডেঙ্গুর চারণভূমিতে পরিণত হয়েছে ।

প্রসঙ্গত, অনিমা মজুমদার নামক দমদম মানিকপুরের বাসিন্দা ৬৩ বছরের একজন বৃদ্ধা  মারা গেলেন সল্টলেকের একটি বেসরকারি হাসপাতালে । গত ৪.১০.২০১৮ তারিখে প্রবল জ্বর নিয়ে তিনি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন ।  প্রথম রক্ত পরীক্ষায় ফলাফল পসিটিভ-ই আসে । তার পরের দিনই বিকাল ৫.২০মিনিট নাগাত মারা যান তিনি । চলতি বছরে ডেঙ্গু জ্বরের প্রভাবে কলকাতায় এটা এগারোতম মৃত্যু । 

ডেঙ্গুর প্রভাব উত্তর কলকাতা থেকে ছড়ানো শুরু হয়েছিল, সেখান থেকে বেহালা, পূর্ব কলকাতা ,সেন্ট্রাল কলকাতা হয়ে ডেঙ্গুর কবল থেকে রক্ষা  মেলেনি  কলকাতা আশেপাশের বিস্তীর্ণ এলাকার মানুষের । কিন্তু সবথেকে অবাক করা বিষয় হল,  ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হলেও, সরকারের তরফ থেকে একে অজানা জ্বর বলে চালানো হচ্ছে । 

হাসপাতাল সূত্রের খবর, অনিমা দেবী খুব ই গুরুতর  অবস্থায় হাসপাতাল এ ভর্তি হয়েছিলেন । ভাইটাল প্যারামিটার অতন্ত্য সংকট জনক হতে শুরু করেছিল, তারপরই শরীরের ভাইটাল অর্গানগুলি ফেল করতে শুরু করে । ডাক্তারদের মত অনুযায়ী,  যেকোনো মানুষের জ্বর হলেই প্রথম দিনেই NS-1  দ্রুত করিয়ে  নিতে হবে । এই ভাইরাসকে প্রথম দিনেই চিহ্নিত নাও  করা যেতে পারে । তারজন্য ২৪ ঘন্টা সময়ও লাগতে পারে, তাই সাবধানতা ২৪ ঘন্টা আগে থেকেই অবলম্বন করা প্রয়োজন । 

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]