নিউজ ডেস্ক,লন্ডনঃ-

উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং-উন  মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে দেখা করার জন্যে ট্রেনে করে ভিয়েতনামের উদ্দেশ্যে রওনা হলেন।চিনের সীমান্তবর্তী শহর ড্যানডং-এ শনিবার স্থানীয় সময় রাত ৯টায় তিনি পৌঁছন।আগামী বুধ ও বৃহস্পতিবার ট্রাম্পের সঙ্গে ভিয়েতনামের রাজধানী হ্যানয়ে কিমের দুদিনের শীর্ষ বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা।এর আগে দুই নেতার মধ্যে গত বছরের জুন মাসে সিঙ্গাপুরে প্রথম বৈঠক হয়েছিল।আগামী বুধ ফের দেখা হচ্ছে দুই শীর্ষ নেতার।যদিও ভিয়েতনামের অনুষ্ঠিত শীর্ষ বৈঠকের বিষয়বস্তু এখনও ঘোষণা করেনি।
শনিবার রাতে উত্তর কোরিয়ার পক্ষ থেকে কিম  জং-উনের দেশ ছাড়ার খবর জানানো হয়েছে এবং একই সাথে বলা হয় যে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে কিমের বৈঠক হতে যাচ্ছে।উল্লেখ্য ভিয়েতনামের লাগোয়া সীমান্ত হল চিনের।তাই ভিয়েতনামে ঢুকার আগে কিমের ট্রেন চিনের ভেতরের ২ হাজার কিলোমিটারের বেশি পথ অতিক্রম করতে হবে।মোট ৬০ ঘন্টায় ৩ হাজার কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে হ্যানয়ে পৌঁছবেন।কিমের সফরসঙ্গী হয়েছেন তার বোন কিম ইয়ো জং এবং অন্যতম প্রধান আলোচক প্রাক্তন জেনারেল কিম ইয়ং চোল।পিয়ংইয়ংকে পরমাণু অস্ত্রমুক্ত করাই উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে আমেরিকার আলোচনার প্রধান কারণ।অপরদিকে উত্তর কোরিয়ার লক্ষ্য হল নিজের দেশের ওপর থেকে যেন সমস্ত আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা উঠে যায়।গত বৈঠকে মৌখিকভাবে উত্তর কোরিয়াকে পরমাণু অস্ত্রমুক্ত করতে দুপক্ষ সম্মত হলেও এখন পর্যন্ত কোন কিছুই এগোয় নি।এদিকে উত্তর কোরিয়া চাইছে আগে  নিষেধাজ্ঞার প্রত্যাহার হোক তারপর অস্ত্র ধ্বংস করা হবে।অপরদিকে আমেরিকার ব্যক্তব্য হল, পরমাণু অস্ত্র সম্পূর্ণভাবে ধ্বংস করার পরই নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার হবে।এই অবস্থায় ভিয়েতনামে অনুষ্ঠিত আগামী বৈঠকে একে অপরকে কতটা ছাড় দেয় সেটা জানার জন্য অপেক্ষা করছেন পর্যবেক্ষকরা।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]