নন্দীগ্রামের বিধায়ক পদ থেকে পদত্যাগ করেছেন শুভেন্দু অধিকারী। তৃণমূল কংগ্রেসের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করেছেন। অমিত শাহের হাত ধরেই যোগ দিয়েছেন বিজেপিতে। শনিবারই অমিত শাহের উপস্থিতিতেই বিজেপিতে যোগদান করেন শুভেন্দু অধিকারী।২০১৪ থেকেই ভেতরে ভেতরে অমিত শাহর সঙ্গে তঁার যোগাযোগ ছিল, প্রকাশ্য জনসভায় তা স্বীকার করে নিলেন শুভেন্দু অধিকারী। বিজেপি-‌তে যোগ দিতে আসার আগে শুভেন্দু এদিন কর্মী-সমর্থকদের উদ্দেশ্যে ছ’‌পাতার একটি খোলা চিঠিও লেখেন। যার মূল কথা:‌’‌তৃণমূলে পচন ধরেছে। ১০ বছরে কোনও পরিবর্তন হয়নি। দলের থেকে ব্যক্তিস্বার্থ প্রাধান্য পাচ্ছে। বাইরে থেকে যাঁদের ভাড়া করে নিয়ে আসা হয়েছে, তাঁরাই দল চালাচ্ছেন। তৃণমূল কংগ্রেসের প্রতিষ্ঠাতা সদস্যরা অপমানিত হচ্ছেন।’‌
শনিবার তৃণমূল ভবনে মিডিয়া সেন্টারে সাংবাদিক বৈঠকে সাংসদ কল্যাণ ব্যানার্জি একথা বলেছেন।
তিনি বলেন, ‘‌বাংলার উন্নয়ন হয়নি, একথা বলতে শুভেন্দুর লজ্জা করে না?‌ নিজেকে একজন বড় নেতা ভাবেন। দু’‌বার হেরেছিলেন কেন?‌ আজ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ওঁর আদর্শ হয়ে গেল। সাহস থাকে নন্দীগ্রামে দাঁড়াবেন। আসন বদল করবেন না। ২০১৪ থেকে বিজেপি-‌র সঙ্গে যোগাযোগ রেখেছেন। বিজেপি-‌তে যাবেন এটা আমরা ধরেই নিয়েছিলাম। তাই, পর্যবেক্ষকের পদগুলি তুলে দেওয়া হয়েছিল।’‌

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]