নিউজ ডেস্ক কলকাতা ঃ-

বিজেপির সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক কৈলাস বিজয়বর্গীয় কলকাতায় শনিবার দুপুরে রোজভ্যালিকাণ্ডে ভুক্তভোগীদের সঙ্গে বৈঠক করেন।পার্ক প্রাইম হোটেলের বাইরে বিগত বিরানব্বই দিন ধরে ওই প্রতারিতরা ধর্ণায় বসে আছেন৷শেষ পাঁচ দিন তাঁরা আমরণ অনশনে বসে রয়েছেন৷ চিটফান্ডে ভুক্তভোগীদের ধর্ণা এবং অনশণের পাশে থাকতে চায় বিজেপি৷ লোকসভা নির্বাচনের আগে রাজ্যে রাজনৈতিক ইস্যুকে সামনে রেখে পশ্চিমবাংলায় নির্বাচনে লড়াই করতে চাইছে বিজেপি৷ শুধু বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহই নয়, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও সাফ জানিয়ে দিয়েছেন রাজ্যে চিট ফান্ডের অভিযুক্তদের প্রত্যেককে আইনের দরজা পর্যন্ত নিয়ে যাওয়া হবে৷ পাই-পাই হিসেব দিতে হবে তাদের। অন্যদিকে অমিত শাহ মালদহের জনসভায় পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন এবার বাংলায় লোকসভার ভোটের প্রধান রাজনৈতিক ইস্যু নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল৷ বাংলাদেশের বেআইনি অনুপ্রবেশ বন্ধ করে হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রীস্টান, পার্শিদের নাগরিকত্ব দিতে চাইছে কেন্দ্র৷ কিন্তু তৃণমূল কংগ্রেস লোকসভায় ওই বিলের বিরোধীতা করেছে৷ ৮ই ফেব্রুয়ারী অনশনকারীদের ফলের রস খাইয়ে অনশন ভাঙ্গান কৈলাস৷ তিনি বলেন রোজভ্যালির হোটেল বেঁচে কেন প্রতারিতদের টাকা ফেরত দেওয়া হয়নি তা যাতে ইডি দেখে সে বিষয়ে জানানো হবে৷

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]