গত সপ্তাহে উত্তরপ্রদেশের বালিয়ায় পুলিশের সামনেই গুলি চালান এক ব্যক্তি। তাতে একজনের মৃত্যু হয়। সেই হত্যাকারীর পক্ষে দাঁড়ান বিজেপির বিধায়ক সুরেন্দ্র সিং। সেই বিধায়ককে কঠোরভাবে সতর্ক করে দিলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নড্ডা। তিনি বলেছেন, বিধায়ক যেন তদন্তের পথে বাধা সৃষ্টি না করেন। যে ব্যক্তি গুলি চালিয়েছিলেন, তাঁর নাম ধীরেন্দ্র সিং। ওই ঘটনার পরে তিনি গা ঢাকা দিয়েছিলেন। রবিবার পুলিশ তাঁকে গ্রেফতার করেছে। সুরেন্দ্র সিং বলেন, আত্মরক্ষার জন্যই ধীরেন্দ্রকে গুলি চালাতে হয়েছিল। পুলিশকে দোষ দিয়ে বিধায়ক বলেন, তারা ‘একপেশে তদন্ত’ করেছে। গুলি চালানোর কথা শুনে সুরেন্দ্র প্রথমে বলেন, ‘এমন ঘটনা যে কোনও জায়গায় ঘটতে পারে।’ পরে তিনি বলেন, ‘আমি ওই ঘটনার নিন্দা করছি। কিন্তু প্রশাসন যেভাবে একপেশে তদন্ত করেছে, তাও নিন্দনীয়। সেদিন ধীরেন্দ্র সিং যদি আত্মরক্ষার্থে গুলি না চালাতেন, তাহলে তাঁর পরিবারের কয়েক ডজন লোক মারা পড়ত। তাঁর সামনে আর কোনও রাস্তা খোলা ছিল না।’ দলের বিধায়ক এমন মন্তব্য করেছেন শুনে বিজেপির সভাপতি উত্তরপ্রদেশে দলের প্রধান স্বতন্ত্র দেব সিংকে ফোন করেন। তাঁকে বলেন, বিধায়ক যদি তদন্তে হস্তক্ষেপ করেন, তাহলে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে। গত শুক্রবার রাতে ধীরেন্দ্র সিং-এর একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। তাতে ধীরেন্দ্র সব অভিযোগ অস্বীকার করেন। তাঁর দাবি, প্রশাসনের জন্যই বালিয়াতে হিংসাত্মক ঘটনা ঘটেছিল। ভিডিওতে ধীরেন্দ্রকে বলতে শোনা যায়, ‘আমি জানি না কে গুলি চালিয়েছিল। আমি অফিসারদের কাছে আর্জি জানাচ্ছি, আমার পরিবারকে রক্ষা করুন। আমি একজন সৈনিক। আমি সবসময় দেশকে সেবা করায় বিশ্বাসী। আমি মুখ্যমন্ত্রীর কাছে আবেদন জানাচ্ছি, পুরো ঘটনার যথাযথ তদন্ত হোক।’ প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, জয়প্রকাশ নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে ধীরেন্দ্রর ঝগড়া হয়েছিল। ধীরেন্দ্র ছিল বিজেপির স্থানীয় প্রাক্তন সেনাকর্মী শাখার প্রেসিডেন্ট। সে জয়প্রকাশকে লক্ষ্য করে তিনবার গুলি চালায়। ধীরেন্দ্রর দাবি, তিনি এমন কিছু করেননি যা থেকে হিংসা ছড়াতে পারে। ভিডিওতে তাঁকে বলতে শোনা যায়, ‘আমি স্থানীয় প্রশাসনকে আগেই বলেছিলাম অশান্তি হতে পারে। ওই হিংসাত্মক ঘটনায় জেলা প্রশাসনের অফিসাররা জড়িত।’ ধীরেন্দ্রর অভিযোগ, প্রশাসনকে সতর্ক করা সত্ত্বেও গ্রামে যথেষ্ট সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়নি।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]