পূর্বনির্ধারিত সূচি অনুযায়ী মঙ্গলবার ছিল খুমলুং দখলের মহাযুদ্ধ। এদিন সকাল থেকেই এডিসি নির্বাচনের ভোট গ্রহণ পর্ব চলে রাজ্যের এডিসি নির্বাচনী কেন্দ্রগুলিতে। পাহাড় কার দখলে থাকবে তার ওপর শুধু রাজ্য নয় নজর গোটা দেশের। এদিন সকাল থেকে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থার মধ্যে দিয়ে ২০টি উপজাতি সংরক্ষিত আসনের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। সকালে নির্বাচনের ভোট গ্রহণ প্রক্রিয়া শান্তিপূর্ণ ভাবে শুরু হলেও দিন গড়ায় ততই পরিস্থিতি উত্তপ্ত হতে থাকে বিভিন্ন কেন্দ্রে। সংবাদে প্রকাশ ২২ কাঠালিয়া মিজা রাজাপুর কেন্দ্রের ৫৭ নং বুথ এর তুলামুড়া ৫৭ নং বুথে বিজেপি কর্মীর উপর এিপরা মোথার কর্মীদের মধ্যে লাঠি ,ইট পাটকেল দিয়ে আক্রমন করা হয় বলে খবর। এতে গুরুতর ভাবে আহত হয় বেশ কয়েজন বিজেপি কর্মী। আহত কর্মীদের প্রথমে গোমতী জেলা হাসপাতালে পরবর্তী সময়ে আগরতলা GB হাসপাতে নিয়ে যাওয়া হয়।পরে ৫৭ নং বুথে মোতায়েন করা হয় বিশাল পুলিশ ও CRPF।

এদিকে ২৭ পূর্ব মুহুরীপুর ভুড়াতলী কেন্দ্রেও বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের মধ্যে বাকবিতন্ডা ও মারধরের খবর পাওয়া যায়।

অন্যদিকে,দুপুর ১২টা পর্যন্ত শান্তিপূর্ণভাবেই ভোটগ্রহণ চলে। মহারানী চেলাগাং এবং অম্পি কেন্দ্রের বিভিন্ন বুথ সেন্টারে।

কাঞ্চনপুরে দামচারা জম্পুই ১নং আসনে সকাল ৯:৩০ পর্যন্ত EVM বিকল থাকার কারণে ভোট গ্রহণে বাধা সৃষ্টি হয়। দীর্ঘ সময় ভোটার লাইনে দাঁড়িয়ে থেকে বিরক্তি প্রকাশ করেন একাংশ ভোটার।

প্রসঙ্গত , ২১মহারানী চেলাগাং কেন্দ্রের ৩৬ নম্বর সেন্টারের ভোট বয়কট করেন গণদেবতারা। অভিযোগ তাদেরনাকি হুমকি দেয়া হয়েছে।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]