নিউজ ডেস্ক, দিল্লিঃ-

উত্তরপূর্ব ভারতের অরুনাচলের রাজধানীতে এয়ারপোর্ট তৈরি করার অনুমতি দিয়েছে মোদী সরকার। অরুণাচল প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী পেমা খান্ডু এর জন্য দেশের প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। মুখ্যমন্ত্রী পেমা খান্ডু বলেছেন এই সিদ্ধান্তের ফলে অরুনাচল প্রদেশের জনগনের বহু দশক পুরানো স্বপ্ন পূরণ হল। ১০৫৫ কোটি টাকা খরচ হবে এই এয়ারপোর্ট তৈরির জন্য । এই প্রজেক্টকে পি আই বি অর্থাৎ পাবলিক ইনভেসমেন্ট বোর্ড মঞ্জুরি দিয়ে দিয়েছে। চীনা সীমানার খুব কাছে এই এয়ারপোর্টটি তৈরি হওয়ার ফলে সামরিক দিক থেকে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। চীন বরাবরই অরুনালচল প্রদেশের উপর নিজেদের আধিপত্য খাটাবার চেষ্টা করে আসছে। এই কারণে এয়ারপোর্ট চীনের মাথা ব্যাথা বাড়াবে। মুখ্যমন্ত্রী পেমা খান্ডু নিজের টুইটারে লিখেছেন টিম অরুনাচলের জন্য এটা খুশির খবর যে রাজধানীতে এয়ারপোর্ট তৈরির জন্য পি আই বি এক হাজার পচপান্ন কোটি টাকার মঞ্জুরি দিয়েছে।

রাজধানীতে এয়ারপোর্ট তৈরি হওায়াতে অরুনাচল বাসীর দীর্ঘদিনের স্বপ্ন পুরন হল বলে টুইট বার্তায় জানিয়েছেন অরুনাচল প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী পেমা খান্ডু । এই প্রজেক্টটের মঞ্জুরি দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদও জানিয়েছেন পেমা। প্রধানমন্ত্রী মোদীর সাথে বৈঠকের পরই মুখ্যমন্ত্রী প্রেমা খান্ডু  মিডিয়ায় কাছে জানিয়েছিলেন যে জানুয়ারি মাসেই অরুনাচলের রাজধানী ইটানগরে এয়ারপোর্ট নির্মাণের খবর সামনে আসতে পারে।
জানুয়ারি মাসেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এই এয়ারপোর্টের শিলান্যাস করবেন। ধারানা করা হচ্ছে এই এয়ারপোর্টটি সিকিমের নূতন তৈরি এয়ারপোর্টের তুলানায় অনেক বেশি অত্যাধুনিক হবে। এই এয়ারপোর্টটি নির্মাণের জন্য প্রথম ধাপে ৩৫০ কোটি টাকা প্রদান করা হবে বলে জানিয়েছেন অরুনাচলের মুখ্যমন্ত্রী। এই এয়ারপোর্টটি অরুনালচলবাসীর স্বপ্ন  পূরণের  সাথে  চীনের  মাথা ব্যাথা বাড়াবার জন্য যথেষ্ট বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]