নিউজ ডেস্ক কলকাতা ঃ-

যোগী আদিত্যনাথের সভার দিনেই তৃণমূল নেতা সভা করার কথা ছিল ঐ জেলায়। কিন্তু তৃণমূল তা বাতিল করে দিল। যা নিয়ে রাজ্যের শাসক দল ঘাস ফুল শিবিরকে কটাক্ষ করতে শুরু করেছে।এই সমস্ত কিছু মধ্যে নজর কেড়েছে পশ্চিমের জেলা পুরুলিয়া। এই জেলায় আগামী মঙ্গলবার সভা করতে আসছেন উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী তথা দেশের অন্যতম আলোচিত নেতা যোগী আদিত্যনাথ।পুরুলিয়া জেলার দুই নম্বর ব্লকের ভাংড়া গ্রামে জনসভা করার কথা ছিল উনার।
সামনে লোকসভা নির্বাচন।আগামী মাসেই ঘোষণা হয়ে যাবে নির্বাচন। ঠিক এই সময়ে রাজনৈতিক দলগুলির প্রচার এবং পরস্পরকে আক্রমণের গতি শুরু হয়ে গেছে। সব দেশের সাথে ব্যতিক্রম নয় বাংলাও। ২০১৪ সালের মতোই চতুর্মুখী লড়াই হতে চলেছে এই রাজ্যে। বিজেপি জোড়কদমে প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে, তাঁর সাথে অন্যান্যরাও পিছিয়ে নেই।তাঁর সাথে তৃণমুল কংগ্রেসের ব্রিগেড সমাবেশ নজর কেড়েছে গোটা দেশের।গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে ভালো ফল লাভ করার কারণেই পুরুলিয়া জেলাতে যোগীর সভার আয়োজন করেছে বিজেপির বঙ্গ ব্রিগেড।ঠিক ওই দিনেই পুরুলিয়ায় সভা করার কথা ছিল তৃণমূল কংগ্রেসের অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের।
হেভিওয়েট নেতারার সভাকে ঘিরে চাপা উত্তেজনা বেড়েছিল পুরুলিয়া সহ সারা রাজ্যে।কে বেশি সমাদর পাবেন?তৃণমূল পুরুলিয়া জেলার জয়পুর ব্লকে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভা বাতিল করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।এই বিষয়ে পুরুলিয়া জেলার বিজেপি সভাপতি বিবেক রঙ্গা বলেছেন,যোগী আদিত্যনাথ অত্যন্ত জনপ্রিয় ব্যক্তি রাজনীতির ময়দানে।অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর পাশে কিছুই না। যদিও তৃণমূল এদিন সভা করত তাহলে তৃণমূলের সভা পুরই ফাঁকা থাকত। সেই কারণেই সভা করেনি তৃণমূল। অপরদিকে যোগী আদিত্যনাথের সভাকে সমর্থন করে শুক্রবার মিছিল করে পুরুলিয়া জেলার বিজেপির মহিলা মোর্চা।যার নেতৃত্ব দেন মহিলা মোর্চা ও পুরুলিয়া জেলা সভানেত্রী কাবেরী চট্টোপাধ্যায়। তিনি আরও বলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভা বাতিল করার কারন “ভয় পেয়েছে তৃণমূল বলেই সভা স্থগিত রেখেছে”।  

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This is todays COVID data

[covid-data]